শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২২ ১৪২৭ ||  ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ACI Agri Business

রোগ প্রতিরোধে ভিটামিন সি’র ভান্ডার আমলকি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৩:১৩, ৭ জুন ২০২০

ভেষজ গুণে অনন্য একটি ফল আমলকি ।টক আর তেতো স্বাদে ভরা আমলকি গুণে-মানে অতুলনীয়। ফলটি শুধু ভিটামিন আর খনিজ উপাদানেই ভরপুর নয়, বিভিন্ন রোগব্যাধি দূর করায়ও রয়েছে অসাধারণ গুণ।  একজন মানুষ যদি প্রতিদিন ৬ দশমিক ৫ গ্রাম আমলকি খান, তবে অনেক রোগ থেকেই মুক্ত থাকতে পারবেন। 

ভিটামিন সি প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা শরীরের বিভিন্ন ক্ষতিকর মুক্ত মৌলগুলোর প্রভাব থেকে রক্ষা করে।মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বিশেষজ্ঞরা জোর দিচ্ছেন শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে। এই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ করে নজর দিতে হবে ভিটামিন-সি জাতীয় খাবারের দিকে।আমলকি ভিটামিন সি এর অন্যতম উৎস যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং সংক্রমণ রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে।

পুষ্টি বিজ্ঞানীদের মতে, আমলকিতে পেয়ারা ও কাগজি লেবুর চেয়ে তিন গুণ ও ১০ গুণ বেশি ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে। আমলকিতে কমলালেবুর চেয়ে ১৫ থেকে ২০ গুণ বেশি, আপেলের চেয়ে ১২০ গুণ বেশি, আমের চেয়ে ২৪ গুণ এবং কলার চেয়ে ৬০ গুণ বেশি ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে।

আমলকি খাওয়ার উপকারিতাঃ

•    আমলকি চুলের টনিক হিসেবে কাজ করে এবং চুলের পরিচর্যার ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এটি কেবল চুলের গোড়া মজবুত করে তা নয়, এটি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। এটি চুলের খুসকির সমস্যা দূর করে ও পাকা চুল প্রতিরোধ করে।

•    আমলকির রস কোষ্ঠকাঠিন্য ও পাইলসের সমস্যা দূর করতে পারে, এছাড়াও এটি পেটের গোলযোগ ও বদহজম রুখতে সাহায্য করে।

•    অগ্ন্যাশয়ের ক্ষত সারাতে আমলকী বেশ কার্যকর। এটি রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সাহায্য করে। কিডনির রোগ সারাতেও কাজ করে। 

•    আমলকি বিভিন্ন ধরনের লিভারের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। এটি জন্ডিস ভালো করতেও বেশ উপকারী।

•    রোদে পোড়া দাগ দূর করতে আমলকী খওয়া যেতে পারে। এটি সানস্ট্রোক থেকেও রক্ষা করে । ব্রণ ও ত্বকের অন্যান্য সমস্যায় এটি বেশ উপকারী।

•    দীর্ঘমেয়াদি সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা পেতে আমলকি বেশ উপকারী। মস্তিষ্কের শক্তি বাড়াতেও সহায়তা করে।

•    আমলকির রস দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। এছড়াও চোখের বিভিন্ন সমস্যা যেমন চোখের প্রদাহ। চোখ চুলকানি বা পানি পড়ার সমস্যা থেকে রেহাই দেয়। আমলকি চোখ ভাল রাখার জন্য উপকারী। এতে রয়েছে ফাইটো-কেমিক্যাল যা চোখের সঙ্গে জড়িও ডিজেনারেশন প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। 

•    ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রেখে ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। কোলেস্টেরল লেভেলেও কম রাখাতে যথেষ্ট সাহায্য করে আমলকি। 

•    আমলকি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং মানসিক চাপ কমায়। কফ, বমি, অনিদ্রা, ব্যথা-বেদনায় আমলকি অনেক উপকারী। ব্রঙ্কাইটিস ও এ্যাজমার জন্য আমলকির জুস উপকারী।

•    রুচি বৃদ্ধি ও খিদে বাড়ানোর জন্য আমলকি কার্যকর ভূমিকা পালন করে।এছাড়া আমলকির রস  নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হয় এবং দাঁত শক্ত রাখতে সহায়তা করে।  

Advertisement
Advertisement