মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৫ ১৪২৭ ||  ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ACI Agri Business

মাঠে আসলো ধানের তিন নতুন জাত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:৩৭, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) উদ্ভাবিত আরও তিনটি ধানের জাত অবমুক্তির অনুমোদন দিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার জাতীয় বীজ বোর্ডের ১০৩তম সভায় বোরো মৌসুমের লবণাক্ততা সহনশীল ২টি ও আউশ মৌসুমে চাষাবাদের উপযোগী ১টি অর্থাৎ মোট ৩টি নতুন উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত অবমুক্ত করা হয়। 

সভায় অবমুক্ত করা নতুন জাত গুলোর মধ্যে ব্রি ধান ৯৮ আউশ মৌসুমে চাষ উপযোগী জাত। এর ফলন প্রতি হেক্টরে ৫.০৯ থেকে ৫.৮৭। এর দানা লম্বা ও চিকন। এ জাতের ধানের দানার রং সোনালী। এ জাতের জীবনকাল ১১২ দিন যা রোপা আউশ মৌসুমের জাত বিআর-২৬ এর সমান। ধানের দানায় অ্যামাইলোজের পরিমাণ শতকরা ২৭.৯ ভাগ এবং প্রোটিনের পরিমাণ শতকরা ৯.৫ ভাগ। ভাত ঝরঝরে। কৃষকের মাঠে ফলন পরীক্ষা সন্তোষজনক হওয়ায় আউশ মৌসুমের জন্য বিআর-২৬ এর একটি পরিপূরক জাত হিসাবে চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করা হয়। 

ব্রি ধান-৯৭ ও ব্রি ধান-৯৯ বোরো মৌসুমের উচ্চ ফলনশীল লবণাক্ততা সহনশীল ধানের জাত। এ জাতগুলো আবাদ থেকে শুরু করে কাটা পর্যন্ত লবণাক্ততা সহ্য করতে পারে। 

ব্রি ধান-৯৭ এর গড় জীবনকাল ১৫২ দিন এবং গড় ফলন  হেক্টর প্রতি ৪.৯টন। উপযুক্ত পরিচর্যা পেলে অনুকূল পরিবেশে হেক্টর প্রতি ৭.০ টন পর্যন্ত ফলন দিতে সক্ষম। ধানের দানায় অ্যামাইলোজের পরিমাণ শতকরা ২৫.২ ভাগ এবং প্রোটিনের পরিমাণ শতকরা ৮.৬ভাগ। এর চাল মাঝারি মোটা। বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর ও খুলনা অঞ্চলে অধিক জনপ্রিয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে আশা করছে ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট।

ব্রি ধান-৯৯ এর গড় জীবনকাল ১৫৫ দিন এবং গড় ফলন হেক্টর প্রতি ৫.৪ টন। উপযুক্ত পরিচর্যা পেলে অনুকূল পরিবেশে হেক্টর প্রতি ৭.১ টন পর্যন্ত ফলন দিতে সক্ষম। ধানের দানায় অ্যামাইলোজের পরিমাণ শতকরা ২৭.১ ভাগ এবং প্রোটিনের পরিমাণ শতকরা ৭.৯। এর চাল লম্বা ও চিকন। ধানের নতুন এ জাতটিও উদ্ভাবন করা হয়েছে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট ও খুলনা অঞ্চলে লবণাক্ততা বিবেচনা করে। 

নতুন এই তিনটি জাত উদ্ভাবনের ফলে ব্রি উদ্ভাবিত সর্বমোট ধান জাতের সংখ্যা হলো ১০৫ টি।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নাসিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ অনুষ্ঠিত এ সভায় ব্রি'র মহাপরিচালক ড. মো.শাহজাহান কবীর সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
Advertisement