মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯ ||  কার্তিক ৬ ১৪২৬ ||  ২২ সফর ১৪৪১

মাটি-বিনা চাষ: সুবিমল চন্দ্র দে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:২৭, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মাটি-বিনা চাষ বইটি সুবিমল চন্দ্র দে মাটিবিহিন চাষাবাদ নিয়ে লেখা। মাটিতে ফুল-ফল, শাক-সবজি মাটিতে চাষ হবে—এটাই স্বাভাবিক, সনাতন ও প্রচলিত পদ্ধতি। কিন্তু বর্তমানে দেশে যে হারে আবাদি জমি কমছে তাতে অনেকের পক্ষে চাইলেই জমিতে চাষাবাদ করা সম্ভব হচ্ছে না। বিশেষ করে ঘনবসতিপূর্ণ শহর অঞ্চলে পছন্দমতো জমি নিয়ে শাক-সবজি, ফল-মূল আবাদ প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠেছে। 

এমনই কঠিন বাস্তবতায় মানুষ যাতে মাটি ছাড়াই বাড়ির আঙিনা, ছাদ, বারান্দা বা খোলা জায়গায় তাদের পছন্দের ফসল, ফুল ও সবজির আবাদ করতে পারে সেই সুযোগ করে দিয়েছেন আমাদের কৃষি বিজ্ঞানীরা। অনেকটা পানি নির্ভর বিকল্প এই ফসল উত্পাদন পদ্ধতি জনপ্রিয়তাও পাচ্ছে দিন দিন। 

মাটিবিহীন চাষ কৌশলে উৎপাদন হচ্ছে টমেটো, লেটুস, ফুলকপি, বাঁধাকপি, শসা, ক্ষীরা, ক্যাপসিকাম, স্ট্রবেরি, অ্যানথরিয়াম, গাঁদা, গোলাপ, অর্কিড, চন্দ্রমল্লিকাসহ নানা ফসল। মাটিবিহীন এই চাষ পদ্ধতিকে বলা হয় হাইড্রোপনিক এবং একোয়াপনিক। মাটির পরিবর্তে পানিতেই অবলীলায় জন্মাতে পারবেন টমেটো, লেটুস, ফুলকপি, বাঁধাকপি, শসা, ক্ষীরা, ক্যাপসিকাম, স্ট্রবেরি, অ্যানথরিয়াম, গাঁদা, গোলাপ, অর্কিড, চন্দ্রমল্লিকা আরো কত ফসল। 

মাটিবিহীন পানিতে ফসল উৎপাদনের এ কৌশলকে বলে হাইড্রোপনিক, যা একটি অত্যাধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি। এ পদ্ধতিতে সারাবছরই সবজি ও ফল উৎপাদন করা সম্ভব। এখন থেকে যেখানে স্বাভাবিক চাষের জমি কম কিংবা নেই সেখানে বাড়ির ছাদে, আঙ্গিনায়, বারান্দা, খোলা জায়গায় পলি টানেল, টব, বালতি, জগ, বোতল, পাতিল, প্লাস্টিকের ট্রে, নেট হাউসে হাইড্রোপনিক, পদ্ধতিতে অনায়াসে সবজি, ফল ও ফুল উৎপাদন করতে পারবে বাংলাদেশের কৃষক থেকে শুরু করে শৌখিন সম্প্রদায়। এই চাষাবাদে কোনো কীটনাশক বা আগাছানাশক কিংবা অতিরিক্ত সার দেয়ার প্রয়োজন পড়ে না।