মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯ ||  কার্তিক ৬ ১৪২৬ ||  ২২ সফর ১৪৪১

প্রাকৃতিক উপাদানে রূপচর্চায় ঘি এর ব্যবহার

লেঃ কর্নেল মোঃ তুহিন হাসান, পিএসসি

প্রকাশিত: ২০:৪১, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ঘি শুধু খাবারের আভিজাত্য আর স্বাদ বাড়ায় এমনটি যারা জানের তাদের কাছে রূপচর্চায় ঘি এর ব্যবহার নতুন মনে হতে পারে। তবে রূপচর্চায় এর ব্যবহার চলে আসছে যুগযুগ ধরে। চাইলে আপনিও শুরু করতে পারেন রূপচর্চায় ঘি এর ব্যবহার। 

১. শুষ্ক ত্বকের জন্য: 
পরিমাণ মতো ঘি সামান্য গরম করুন। গোসলের আগে পুরো শরীরে মালিশ করে নিন। মনে রাখতে হবে ঘি খুব সামান্য গরম করতে হবে যা ত্বকের জন্য সহনীয়। ঘি মাখার পর ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে গোসল করে ফেলুন। শীতের সময় এই প্রক্রিয়া বেশি উপকারী।

২. ঠোঁটের আর্দ্রতা ফেরাতে: 
রাতে ঘুমানোর আগে দু এক ফোঁটা ঘি আঙুলে নিয়ে ঠোঁটে মালিশ করুন। সকালে পাবেন কোমল ঠোঁট। ঘি ব্যবহারে ঠোঁটে গোলাপি আভা যুক্ত হবে।

৩. চোখের কালি দূর করতে: 
প্রসাধনী ব্যবহার করেও অনেক সময় চোখের নিচের কালি থেকে রেহাই পাওয়া যায় না। তাই এমন সমস্যা থেকে রেহাই পেতে ঘরোয়া এই উপাদান একবার ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে। ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখের উপরে ও নিচে সামান্য পরিমাণে ঘি আলতো হাতে মালিশ করে নিন। সকালে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

৪. নিষ্প্রভ ত্বকের জন্য: 
ত্বকে দীপ্তি ফিরিয়ে আনতে যে কোনো ফেইসপ্যাকে কয়েক ফোঁটা ঘি মিশিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। কাঁচাদুধ, বেসন ও ঘি মিশিয়ে তৈরি ফেইসপ্যাক ত্বকে ব্যবহার করে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

৫. চুল পড়া রোধে:
প্রথমে একটি প্যানে চার থেকে পাঁচ চামচ ঘি গরম করুন। হালকা গরম হলে এর সঙ্গে পাঁচ গ্রাম কাজুবাদামের গুঁড়ো ও তিন টেবিল চামচ কাজুবাদামের তেল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণ চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুলের গোড়া মজবুত হবে এবং চুল পড়া রোধ হবে।

৬. চুলের আগা ফাটা দূর করে:
তিন টেবিল চামচ ঘি নিয়ে চুলের আগায় ভালো করে লাগান। এবার ১৫ মিনিট পর চুল আঁচড়ে নিন। সবশেষে চুলে মাইল্ড শ্যাম্পু লাগিয়ে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে চুলের আগা ফাটার সমস্যা দূর হবে।

৭. নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে:
মাসে অন্তত দুবার চুলে ঘি লাগান। এরপর আমলকির রস অথবা পেঁয়াজের রস দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, ধীরে ধীরে আপনার মাতায় নতুন চুল গজাবে।

৮. খুশকি দূর করে:
কাজুবাদামের তেলের সঙ্গে ঘি মিশিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করুন। ১৫ মিনিট পর গোলাপজল দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এভাবে নিয়মিত ব্যবহারে চুলের খুশকি দূর হবে।

লেখক: পরিচালক (ভেটেরিনারিয়ান),বিজিবি