শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮ ||  ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

ACI Agri Business

ডিজিটাল অ্যাপস্ ও কল সেন্টার চালু করলো আফতাব

প্রকাশিত: ১১:২৪, ৩১ অক্টোবর ২০২১

ডিজিটাল অ্যাপস্ ও কল সেন্টার আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরুর মাধ্যমে দেশের মৎস্যচাষী ও পরিবেশকদের মাঝে নতুন এক দিগন্তের উন্মোচন করলো আফতাব ফিড প্রোডাক্টস্ লি:। বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ইউএসএআইডি, ওয়ার্ল্ড ফিশ এবং আফতাব ফিড প্রোডাক্টস যৌথভাবে এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়। এরই ধারাবহিকতায় আজ শনিবার ৩০ অক্টোবর যাত্রা শুরু করলো তাদের দুটি ডিজিটাল উদ্যোগ।

দেশের কৃষি শিল্পের অন্যতম পথিকৃৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান জহুরুল ইসলাম কোম্পানীজ-এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান আফতাব ফিড প্রোডাক্টস্ লি: এ উপলক্ষে রাজধানীর বনানীর একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য অধিদপ্তরের ডিজি কৃষিবিদ কাজী শামস আফরোজ।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের পর আয়োজক প্রতিষ্ঠান আফতাব ফিড প্রোডাক্টস্ লি:-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব আবু লুৎফে ফজলে রহিম খান স্বাগত বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, পরিবেশক ও মৎস্য চাষী পর্যায়ে কার্যকর ও সঠিকভাবে ফিড সরবরাহের জন্য অ্যাপভিত্তিক সাপ্লাই চেইন প্রতিষ্ঠা করার মাধ্যমে কার্যকর সেবা নিশ্চিত করবে আফতাব ফিড প্রোডাক্টস্ লি:। এর পাশাপাশাশি আফতাব কল সেন্টার (অ্যাকুয়াকালচার)-এর মাধ্যমে মানসম্পন্ন সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে বিশেষজ্ঞদের দ্বারা মাছ চাষ সম্পর্কিত সেবা নিশ্চিত করবে তাদের কোম্পানি।

তিনি বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে আফতাব ফিড এর পুরো সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে পরিচালনা করা হবে। ডিলার/সাব-ডিলার/মৎস্য চাষী/এলএসপি সরাসরি তাদের প্রয়োজনীয় চাহিদা অনুযায়ী অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে ক্যাটালগ দেখে দেখে ফিড-এর জন্য অর্ডার করতে পারবেন যা অনলাইনে কেনাকাটার মতো। এছাড়া আফতাব কল সেন্টার (আফতাব কৃষি সার্ভিস)-এর মাধ্যমে যে কোন মৎস্য চাষী দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে তার মোবাইল হতে কল করে মৎস্য চাষ সংক্রান্ত ও আফতাবের যে কোনো সেবা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেয়ে যাবেন।

প্রধান অতিথি কাজী শামস আফরোজ বলেন, আফতাব ফিড প্রোডাক্টস লিমিটেড-এর এ দুটি অ্যাপস্ দেশের মৎস্যচাষীদের নিকট সঠিক সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। নিরাপদ মাছ উৎপাদনে সঠিক সময়ে মৎস্যচাষীদের নিকট সেবা প্রদান, প্রান্তিক খামারি তাদের লাভজনক মৎস্য চাষ-এর মাধ্যমে জীবনমানের উন্নয়ন করতে পারবেন। মাছ চাষের আধুনিক পদ্ধতিগুলো তারা অতি সহজেই অনুসরণ করে নিরাপদ মৎস্য উৎপাদনে অবদান রাখতে পারবেন। তাদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে দেশের অন্যান্য কোম্পানীগুলো এমন উদ্যোগ নিবেন এমন্টাই আশা করেন তিনি।

আফতাবের এ ধরনের ডিজিটাল উদ্যোগ গ্রহনের প্রশংসা করে বক্তব্য প্রদান করেন ইউএসএইড-এর ইকোনোমিক গ্রোথ অফিসার প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিষ্ট মোহাম্মদ সাঈদ শিবলি, ওয়ার্ল্ড ফিশ- এর চীফ অব পার্টি (কপ) ড. মঞ্জুরুল করিম। তারা বলেন, এর মাধ্যমে দেশের চাষীরা মাছ চাষের সঠিক তথ্য সঠিক সময় পাবেন। পুকুরের আয়তন থেকে পুকুরের পরিবেশ, মাছের বয়স, মাছ চাষের বিভিন্ন পর্যায়ে এসব গুলি সম্পর্কে সঠিক তথ্য খামারিরা পাবে এমনটাই আশা করেন তারা।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আফতাব ডিজিটাল ফিড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট অ্যাপস তৈরির প্রতিষ্ঠান সোর্স ট্রেস-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মো: রেশাদ আলম ও আফতাব কল সেন্টার (অ্যাকুয়াকালচার) তৈরির প্রতিষ্ঠান এগ্রো সল্যুশন এর সিইও এবং একুয়াটিক এনিম্যাল নিউট্রিশনিষ্ট ও কনসালট্যান্ট মি: অং থোয়েন এ (অন্তু)।

অনুষ্ঠানে জানানো হয় আফতাব ডিজিটাল ফিড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট এর অ্যাপস গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাবে। গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে এটি যে কোনো মৎস্য চাষী অথবা ডিলার ব্যবহার করতে পারবেন। অন্যদিকে আফতাবের কল সেন্টার সার্ভিস-এর মাধ্যমে মৎস্য চাষিরা তাৎক্ষণিক তাদের মৎস্য চাষ সংক্রান্ত যেকোন সমস্যার সমাধান পাবেন।

অনুষ্ঠানে এ দুটি ডিজিটাল উদ্যোগ নিয়ে চমৎকার একটি প্রাণবন্ত প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করে আয়োজকরা। আগামীতে কিভাবে সেবা দুটি আরো অধিকতরভাবে সংশ্লিষ্টরা নিতে পারবেন সে নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়। সবশেষে সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন কোম্পানির নির্বাহী পরিচালক জনাব এটিএম হাবিবুল্লাহ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আফতাব বহুমুখী ফার্মস লিমিটেড -এর সিনিয়র ম্যানেজার (এডমিন অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স) মো. মামুনুর রহমান। অনুষ্ঠানে মৎস্য অধিদপ্তরের উর্ধতন কর্মকর্তা, গবেষক, ইউএসএআইডি, ওয়ার্ল্ড ফিশ এবং আফতাব ফিড প্রডাক্টস-এর উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
Advertisement