শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২২ ১৪২৭ ||  ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ACI Agri Business

জাতীয় চিড়িখানার জলাশয়ে ছাড়া হলো মাছের পোনা

প্রকাশিত: ২২:৪৩, ১২ জুন ২০২০

দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে মৎস্য খাত বড় ভূমিকা রাখবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানা লেকে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ শেষে এ কথা বলেন মন্ত্রী। মাছ। 

মৎস্য ও প্রাণিজ খাতের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রায় ৮০ লক্ষ মানুষ জড়িত জানিয়ে শ ম রেজাউল করিম বলেন, দেশের মাছ উৎপাদন চাহিদা যেমন মেটাচ্ছে, রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা এনে দেশের অর্থনীতির চাকাকেও সবল করছে মৎস্য খাত।

“মিঠা পানি, স্বাদু পানি ও লবণাক্ত পানির মাছ যেগুলো দেশের পরিবেশ নষ্ট করবে না, মানুষের পুষ্টি চাহিদা মেটাবে এবং কোনভাবেই ক্ষতিকর নয়, সে জাতীয় মাছের প্রজাতি দেশের বাইরে থেকেও এনে দেশে আমরা বিস্তার করবো। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যার ছোট পুকুর আছে, ভরাট জলাশয় আছে, যাদের মাছের খামার আছে তাদেরকে আমরা সহযোগিতা করছি। বিভিন্ন কৌশলগত অবস্থান নিয়ে প্রায় ৬৫ প্রকারের মাছের প্রজনন ও জাত বৃদ্ধির উদ্যোগ নিয়েছি। দেশের হারিয়ে যাওয়া মাছগুলো আধুনিক খামার ব্যবস্থা ও আধুনিক প্রজনন ব্যবস্থার মাধ্যমে নতুন করে নিয়ে আসছি। দেশে নিজস্ব প্রজাতির মাছ এখন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে” বলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী।

মাছের উৎপাদন বাড়াতে প্রতিবছর মুক্তজলাশয়ে পোনা অবমুক্ত করে থাকে মৎস্য অধিদপ্তর। এরই ধারাবাহিকতায় জাতীয় চিড়িয়াখানার উত্তর ও দক্ষিণ লেকের ৩২ একর আয়তনের জলাশয়ে বৃহস্পতিবার ৮শ’ কেজি পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে ১০-১৫ সেন্টিমিটার আকারের ২শ’ ৬০ কেজি কাতলা মাছ, ২শ’ ৮০ কেজি রুই মাছ এবং কালিবাউস ও মৃগেল মাছের ২শ’ ৬০ কেজি পোনা। ২০১৯-২০ অর্থবছরে মৎস্য অধিদপ্তর সারাদেশের উন্মুক্ত জলাশয়ে ২শ’ মেট্রিক টনেরও বেশি মাছের পোনা অবমুক্ত করে মৎস্য অধিদপ্তর। 

পোনা মাছ অবমুক্তকরণ শেষে মন্ত্রী জাতীয় চিড়িয়াখানা ঘুরে দেখেন, বিভিন্ন প্রাণীর খোঁজ-খবর নেন এবং সংশ্লিষ্টদের দিক-নির্দেশনা প্রদান করেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, অতিরিক্ত সচিব কাজী ওয়াছি উদ্দিন ও শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, যুগ্মসচিব মোঃ তৌফিকুল আরিফ, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডাঃ আবদুল জব্বার শিকদারসহ মন্ত্রণালয় ও মৎস্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement
Advertisement