বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯ ||  অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬ ||  ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

চাষের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, বাম্পার ফলনের আশা আমনে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:১২, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গত মৌসুমের চেয়ে ৪ হাজার বেড়ে এবার আমন চাষ হয়েছে ৫৩ লাখ হেক্টরেরও বেশি জমিতে। লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী চাষ হওয়ায় কাংখিত ফলন পাওয়া যাবে বলেও আশা করছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এবার আমনের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এক কোটি ৩৬ লাখ ৯৪ হাজার  টন (চাল)। 

গত বছর ৫৩ লাখ ১৪ হাজার হেক্টরে রোপা আমন চাষ হয়েছিল। হেক্টর প্রতি গড় ফলন হয়েছিল আড়াই টন (চাল)। মোট উৎপাদনের পরিমাণ ছিল এক কোটি ৩৫ লাখ ৫০ হাজার ৭’শ টন (চাল)। 

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ঢাকা খামার বাড়ির প্রধান কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, মোট জমির মধ্যে এক লাখ ৩৫ হাজার হেক্টরে হাইব্রিড, ৪২ লাখ ৬০ হাজার হেক্টরে উচ্চফলনশীল ও ৯ লাখ ২৩ হাজার হেক্টরে দেশি জাতের রোপা আমন চায় করা হয়েছে। 

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচাল কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহসীন জানান, চালের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য রোপা আমন চাষে অধিক গুরুত্ব দিয়েছেন তারা। বাজারে ধানের ভাল দাম পাওয়ায় চাষীও ধান চাষে অধিক মাত্রায় ঝুঁকেছে জানিয়ে তিনি বলেন, আশা করা যাচ্ছে এবার আমনের বাম্পার ফলন হবে।

কয়েক বছর ধরে ধানের দাম কম থাকায় চাষীরা ধানের বদলে অন্য ফসল চাষ শুরু করেছিল। গত বছর বোরো মৌসুম থেকে বাজারে ধানের দাম চড়তে থাকে। কৃষি সম্প্রসারণ অদিদপ্তরের সরেজমিন উইং এর অতিরিক্ত পরিচালক ড. আব্দুস সালাম বলেন, এবার বৈরি আবহাওয়ার কারনে পাট চাষ কম হওয়ায় ওই জমিতে চাষি রোপা আমন চাষ করেছেন কৃষক।