মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৬ ১৪২৭ ||  ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ACI Agri Business

কুড়িগ্রামে হচ্ছে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:৪৪, ২১ ডিসেম্বর ২০২০

কুড়িগ্রামে প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।‘কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০২০’-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।  

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ও সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, কৃড়িগ্রাম এক সময় মঙ্গাপীড়িত ছিল। সেখানে যদি এ ধরনের বিশ্ববিদ্যালয় হয় তাহলে কৃষি নিয়ে গবেষণা হবে। এর মধ্যে দিয়ে কুড়িগ্রামসহ উত্তরাঞ্চলবাসীর আর্থ-সামাজিক অবস্থার আরো উত্তরণ হবে। ওই এলাকার লোকজনের কৃষি ও সার্বিক অর্থনীতির উন্নয়ন করার লক্ষ্য নিয়ে সেখানে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য।

ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, দেশে মোট ১৫৩টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। এর মধ্যে ৪৬টি সরকারি ও ১০৭টি বেসরকরি। আর দেশে সাতটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চালু আছে।

অন্যান্য কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আইনকে অনুসরণ করে নতুই এই আইন করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

রাষ্ট্রপতি বিশ্ববিদ্যালয়টির আচার্য হবেন জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, ট্রেজারার থাকবেন। আইনে সিন্ডিকেট, একাডেমিক কাউন্সিল, অর্থ কমিটি থাকবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন নিয়ন্ত্রণ করবে।

উত্তরের সীমান্তবর্তী দারিদ্র্যপীড়িত জেলা কুড়িগ্রামে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের খসড়া প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন হওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশের পাশাপাশি সরকার প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে কুড়িগ্রাম জেলার সর্বস্তরের জনগণ। ‘কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০২০’-এর খসড়া অনুমোদন হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় জেলাজুড়ে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে। শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও পেশাজীবীসহ বিশিষ্টজনরা সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছে। 

Advertisement
Advertisement