সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৮ ||  ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ACI Agri Business

ইলিশ ধরা বন্ধে বরিশালের অভিযানে হামলা, ইউএনউসহ আহত তিন

বরিশাল প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০:৪১, ৮ অক্টোবর ২০২১

ইলিশ ধরা নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে অভিযান চালাতে গিয়ে জেলেদের হামলার শিকার হয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে আজ শুক্রবার সকালে গজারিয়া নদীর সিকদারেরহাট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ আহত হন তিনজন। 

হামলায় আহত তিনজন হলেন মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহাদাত হোসেন, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ভিক্টর বাইন ও আনসার সদস্য তুহিন মিয়া। এ সময় শটগানসহ এক আনসার সদস্য নদীতে পড়ে যান। এখনো শটগানটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

আজ শুক্রবার বিকেলে মেহেন্দীগঞ্জের ইউএনও মো. শাহাদাত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বরিশাল থেকে ডুবুরি দল এসে অস্ত্রটি (শটগান) উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে একটি স্পিডবোটে ইউএনও শাহাদাত হোসেনের নেতৃত্বে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আনসার সদস্যদের নিয়ে অভিযানে নামেন। সকাল ১০টার দিকে তাঁরা মেঘনার শাখা গজারিয়া নদীর সিকদারেরহাট এলাকায় অনেকগুলো ইঞ্জিনচালিত মাছ ধরার নৌকা দেখতে পেয়ে সেখানে যান। এ সময় তাঁদের দেখে জেলেরা হামলা চালানোর উদ্দেশ্যে ইউএনওকে বহনকারী স্পিডবোটটিকে সজোরে ধাক্কা দেন। এতে ইউএনও স্পিডবোটের ওপর পড়ে গিয়ে তাঁর বাঁ পায়ে চোট পান এবং মৎস্য কর্মকর্তা ভিক্টর বাইন আহত হন। এ সময় স্পিডবোটে থাকা আনসার সদস্য তুহিন মিয়া হাতে শটগান নিয়ে নদীতে পড়ে যান। পরে তাঁকে নদী থেকে তোলা হলেও শটগানটি পাওয়া যায়নি।

বরিশাল জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ইলিশের প্রজনন নির্বিঘ্ন করতে সরকার ২২ দিনের জন্য ইলিশ আহরণ, বিপণন ও বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এ নিষেধাজ্ঞা শুরু হয় ৪ অক্টোবর। কিন্তু বরিশালের হিজলা, মেহেন্দীগঞ্জসংলগ্ন মেঘনা নদীর অন্তত ১৫০ কিলোমিটারে স্থানীয় জেলেরা নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মা ইলিশ শিকার অব্যাহত রেখেছেন।

হিজলা ও মেহেন্দীগঞ্জসংলগ্ন মেঘনা ও শাখা নদীতে প্রতিবছর নিষেধাজ্ঞার সময় এমন হামলার ঘটনা ঘটছে। গত বছরের ১৫ অক্টোবর নিষেধাজ্ঞা চলাকালে ইলিশবোঝাই ৫-৬টি নৌকা আটক করার পর জেলেরা সংঘবদ্ধ হয়ে মেঘনা নদীতে হিজলার নৌ পুলিশের একটি দলের ওপর হামলা চালান। এতে দুই নৌ পুলিশ সদস্য ম‌নিরুল ইসলাম ও আবু জাফর আহত হয়েছিলেন। ওই বছরের ১৮ অক্টোবর মেহেন্দীগঞ্জসংলগ্ন জাঙ্গালিয়া এলাকার মেঘনা নদীতে মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তারা পুলিশ নিয়ে অভিযানে গেলে স্থানীয় দুই ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলা হয়। ২১ অক্টোবরও ঘটে হামলার ঘটনা। এতে দুই পুলিশ সদস্য আহত হন।
 

Advertisement
Advertisement