সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭ ||  ০৯ শাওয়াল ১৪৪১

আম্ফানে কৃষিতে ক্ষতি সহনীয় -দাবি কৃষিমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ০১:৫৩, ২২ মে ২০২০

দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় আম্ফান তাণ্ডব চালানোর পর রাতভর বৃষ্টি ঝরিয়ে শান্ত হলেও রেখে গিয়েছে এর প্রভাব । ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় কাঁচা ও আধা পাকা ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়, রাস্তা ঘাটের ক্ষতি হওয়াতে যোগাযোগ বেবস্থা ভেঙ্গে পরেছে, বাঁধ ভেঙ্গে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করায় হয়েছে ফসলের ক্ষতি।  

তবে ক্ষয় ক্ষতি কমিয়ে আনার জন্য ঘূর্ণিঝড় আমফান আঘাত হানার পূর্বাভাস পাবার সাথে সাথেই কৃষি মন্ত্রণালয় ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ ফলে ঘূর্ণিঝড় আমফানের ফলে কৃষিতে ব্যাপকভিত্তিক ক্ষতি সাধিত হয়নি।

ঘূর্ণিঝড়ে  আম্ফানে সারা দেশের ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭ হেক্টর জমির বিভিন্ন ফসল নষ্ট হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক। এসব জমিতে থাকা বিভিন্ন ফসলের ৫ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ক্ষতি হয়েছে তবে হাওড়ে শতভাগ, উপকূলীয় অঞ্চলে ১৭ জেলায় শতকরা ৯৬ ভাগসহ সারা দেশে গড়ে ইতোমধ্যে ৭২ শতাংশ বোরো ধান কর্তন করার হয়েছে , যার ফলে যে পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা সামান্য এবং আমাদের খাদ্য উৎপাদনে এর তেমন প্রভাব পড়বে না বলে জানান মন্ত্রী। 

বৃহস্পতিবার (২১ মে) ঘূর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তী কৃষির ক্ষয়-ক্ষতি বিষয়ে অনলাইন প্রেস ব্রিফিং তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি আরও বলেন,  সাতক্ষীরা জেলায় প্রায় ৬০-৭০ ভাগ আম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন জেলায় ঝড়ে পড়া আমগুলো ত্রাণ হিসেবে দুস্থ জনগণের মাঝে বিতরণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছে্। এতে একদিকে যেমন আমচাষিরা কিছুটা আর্থিক ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে অন্যদিকে তেমনি দু:স্থ এবং অসহায় জনগণের পুষ্টির ঘাটতি পূরণ হবে।

এছাড়া,প্রলয়ংকরী ঘুর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত শাকসবজি ও মসলা চাষিদের তালিকা প্রণয়ন করে তাঁদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আমন মৌসুমে বিনামূল্যে সার, বীজ ও নগদ সহায়তাসহ বিভিন্ন প্রণোদনা প্রদান করার পাশাপাশি  ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক, ফল ও পান চাষিদেরকে মাত্র ৪% সুদে কৃষি ঋণের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে জানান মন্ত্রী । এসময় তিনি বিভিন্ন ফসলের শতকরা ক্ষতির হার তুলে ধরেন। 

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ও সকলের সহযোগিতায় মহামারি করোনা এবং সুপার সাইক্লোন আম্পানের মতো দুর্যোগ মোকাবিলা করে দেশের খাদ্য উৎপাদনের বর্তমান ধারা অব্যাহত রাখার দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক, এমপি ।